সিলেটের মাঠে বিদেশিদের দাপট

সিলেটের মাঠে বিদেশিদের দাপট

চারটি ম্যাচ। সবকটিতেই ম্যাচসেরা বিদেশি ক্রিকেটাররা।

এই একটি তথ্যই বিপিএলের পঞ্চম আসরে বিদেশি ক্রিকেটারদের দাপট বুঝাতে যথেষ্ট।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শনিবার থেকে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ক্রিকেটের পঞ্চম আসর। শনি ও রবিবার দুটি করে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিপিএল গভর্নিং কমিটি ম্যাচে সর্বোচ্চ পাঁচজন বিদেশী ক্রিকেটার খেলানোর নিয়ম রেখেছে। সে সুযোগ পুরোদমে কাজে লাগাচ্ছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো।

পঞ্চম আসরে এখনও পর্যন্ত অনুষ্ঠিত সব ম্যাচে পাঁচজন করে বিদেশী ক্রিকেটার খেলিয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। বিদেশীরা যে হতাশ করেন নি, তা স্কোরবোর্ডই বলে দেয়।

শনিবার দুপুরে মাঠে গড়ায় সিলেট সিক্সার্স-ঢাকা ডায়নামাইটস ম্যাচ। প্রথমে ব্যাটিং করে স্কোরবোর্ডে ঢাকা ডায়নামাইটস যে ১৩৬ রান তুলে, তাতে বড় অবদান ছিল তিন বিদেশীর।

ইনিংস সর্বোচ্চ ৩২ রান (২৮ বলে) আসে শ্রীলঙ্কান কুমার সাঙ্গাকারার ব্যাট থেকে। ইনিংসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৬ রান (২৪ বলে) করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের এভিন লুইস, চতুর্থ সর্বোচ্চ ২০ রান (১৩ বলে) আসে দক্ষিণ আফ্রিকান ক্যামেরন ডেলপোর্টের ব্যাট থেকে। ঢাকার যে সাতটি উইকেটের পতন হয়েছিল, তার দুটি শিকার করেন ইংল্যান্ডের পেসার লিয়াম প্ল্যাঙ্কেট।

ওই ম্যাচে দুই বিদেশী, শ্রীলঙ্কান উপুল থারাঙ্গা আর উইন্ডিজ আন্দ্রে ফ্লেচারের ব্যাটেই ৯ উইকেটে জয় পায় সিলেট সিক্সার্স। ৫১ বলে ৬৩ রান করে ফ্লেচার ফিরে গেলেও থারাঙ্গা ৪৮ বলে ৬৯ রানে অপরাজিত ছিলেন। ম্যাচসেরার পুরস্কারও ওঠে থারাঙ্গার হাতে। সিলেট সিক্সার্সের একমাত্র উইকেটটি দখল করেন ইংল্যান্ডের স্পিনার আদিল রশিদ।

ওইদিন দ্বিতীয় ম্যাচে রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে ৮ উইকেটে ১৫৪ রান করে রাজশাহী কিংস। ইনিংসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৯ রান (১৮ বলে) করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ড্যারেন স্যামি, তৃতীয় সর্বোচ্চ ২৬ (২২ বলে) রান আসে নিউজিল্যান্ডে জেমস ফ্র্যাঙ্কলিনের ব্যাট থেকে। রাজশাহী কিংসের আটটি উইকেটের দুটির ‘ঘাতক’ ছিলেন শ্রীলঙ্কান পেসার মালিঙ্গা।

জবাব দিতে নেমে দুই বিদেশী, ইংল্যান্ডের রবি বোপারা ও শ্রীলঙ্কার থিসেরা পেরেরা রংপুর রাইডার্সকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন। মোহাম্মদ মিঠুন ও শাহরিয়ার নাফীসের গড়ে দেয়া ব্যাটিং ভিতে দাঁড়িয়ে বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে ২৩ বলে ৩৯ রান করেন বোপারা, থিরেরা করেন ১২ বলে ২০। জয় পেতে চারটি উইকেট হারাতে হয় রংপুর রাইডার্সকে। রাজশাহী কিংসের দুই বিদেশী দখল করেন দুটি উইকেট। ম্যাচসেরার পুরস্কার রবি বোপারার হাতে ওঠে।

রবিবার বিপিএলের পঞ্চম আসরের তৃতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হয় সিলেট সিক্সার্স-কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মারলন স্যামুয়েলসের ৪৭ বলে ৬০ রানে ভর করে ছয় উইকেটে ১৪৫ রান স্কোরবোর্ডে যোগ করে ভিক্টোরিয়ান্স। সিলেট সিক্সার্সের উইন্ডিজ পেসার ক্রিশমার সান্টোকি দুটি এবং ইংল্যান্ডের পেসার লিয়াম প্ল্যাঙ্কেট একটি উইকেট ঝুলিতে পুরেন।

জয়ের লক্ষ্যে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন সিলেট সিক্সার্সের লঙ্কান ব্যাটসম্যান উপুল থারাঙ্গা ও উইন্ডিজ ব্যাটসম্যান আন্দ্রে ফ্লেচার। ৪০ বলে ৫১ রান থারাঙ্গার, ২৯ বলে ৩৬ ফ্লেচারের। শেষদিকে নুরুল হাসান সোহানের একটি করে ছক্কা ও চারে জয় পেলেও ম্যাচসেরার পুরস্কার পান থারাঙ্গা। সিক্সার্সের সাজঘরে ফেরা ছয় ব্যাটসম্যানের মধ্যে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের উইন্ডিজ পেসার ডোয়াইন ব্রাভো দুটি, আফগান স্পিনার মোহাম্মদ নবী ও উইন্ডিজ অফব্রেক বোলার স্যামুয়েলস নেন একটি করে উইকেট।

দিনের অপর ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের এভিন লুইস ও দক্ষিণ আফ্রিকান ক্যামেরন ডেলপোর্টের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে ৭ উইকেটে ২০২ রানের পাহাড় গড়ে ঢাকা ডায়নামাইটস। ৪০ বলে ৬৬ রান লুইসের, ৩১ বলে ৬৪ ডেলপোর্টের। ডায়নামাইটসের শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যান সাঙ্গাকারার ব্যাট থেকে আসে ১২ বলে ২০ রান।

ম্যাচে খুলনা টাইটানস ৬৫ রানে হারলেও তাদের তিন বিদেশী ব্যাটসম্যান, ওয়ালটন, আর্চার ও রুশো ছিলেন উজ্জ্বল। ফ্র্যাঞ্চাইজিটির উইন্ডিজ ব্যাটসম্যান চ্যাডউইক ওয়ালটন ১৩ বলে ৩০, আরেক উইন্ডিজ ব্যাটসম্যান জোফরা আর্চার ২৪ বলে ৩৬ এবং দক্ষিণ আফ্রিকান রিলে রুশো ১৪ বলে করেন ২৩ রান। ম্যাচসেরার পুরস্কার ঢাকা ডায়নামাইটসের ক্যামেরন ডেলপোর্টের হাতে ওঠে।

0
0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *